Sat. Jan 16th, 2021
আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ

নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে আজ ২৫ নভেম্বর থেকে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ শুরু হয়েছে। ১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বাংলাদেশে ১৬ দিনব্যাপী এই পক্ষ পালনে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে জাতিসংঘ বলেছে, কোভিড-১৯ পরিস্থিতির মধ্যেও বিভিন্ন দেশে নারী ও মেয়েশিশুর প্রতি নানা ধরনের সহিংসতা, বিশেষ করে পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা ঘটে চলেছে। কোভিড সংকটের মধ্যেও সহিংসতার এই ছায়ামহামারি বেড়ে চলেছে।

এই সহিংসতাকে বন্ধ করতে বিশ্বকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। চলমান মহামারিতে সহিংসতার শিকার নারীদের জন্য সহায়তা নিশ্চিত করতে বিশ্বজুড়ে তহবিল সংগ্রহের ওপর জোর দিয়ে এবারের প্রতিপাদ্য করা হয়েছে ‘বিশ্বকে কমলা করুন: তহবিল, প্রতিক্রিয়া, প্রতিরোধ, সংগ্রহ!’

দিবসটি উপলক্ষে আজ বুধবার মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বেলা ১১টায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তনে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বেলা তিনটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। মহিলা পরিষদ জানিয়েছে, ‘ধর্ষণ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ-আসুন নারী ও কন্যার প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলি’—এই স্লোগান সামনে রেখে এ বছরের কর্মসূচি ঘোষণা, বক্তব্য, সুপারিশ ও দাবি তুলে ধরা হবে।

উল্লেখ্য, নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে ১৯৮১ সালে লাতিন আমেরিকায় নারীদের এক সম্মেলনে ২৫ নভেম্বর আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়। ১৯৯৩ সালে ভিয়েনায় বিশ্ব মানবাধিকার সম্মেলন দিবসটিকে স্বীকৃতি দেয়। জাতিসংঘ দিবসটি পালনের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয় ১৯৯৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর। বাংলাদেশে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদ দিবস উদ্‌যাপন কমিটি ১৯৯৭ সাল থেকে এই দিবস ও পক্ষ পালন করছে।

দিবসটি উপলক্ষে আজ সন্ধ্যা সাতটায় ‘আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস ২০২০’ শিরোনামে এক ওয়েবিনার আয়োজন করেছে সেন্ট্রাল উইমেন্স ইউনিভার্সিটির যৌন হয়রানি প্রতিরোধ কমিটি। ওয়েবিনারটি দীপ্ত টেলিভিশনের সহায়তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

By HerNet

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *