Sat. Jan 16th, 2021

বিশ্বে লিঙ্গ বৈষম্য হ্রাসে এশিয়ার শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ। নারী ক্ষমতায়নের রূপকার হিসাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিশ্বব্যাপী সম্মানিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অবদান ও নারী কল্লানে দৃষ্টান্তগুলোকে মাথায় নিয়ে হারনেট নিউজ “WOMEN LEADS, Inspiration HPM” নামক কলামের মাধ্যমে এমন সব নারীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চায় যারা এই অভূতপূর্ব ক্ষমতায়ন এবং অগ্রগতিতে বলিষ্ট ভূমিকা পালন করে চলছে । তার ধারাবাহিকতায় HerNet News এর ” পাতায় এবারের আলোচনাপর্বে অতিথি হিসেবে যুক্ত হয়েছিলেন আভিজাত্য ফার্নিচার আথিনার রূপকার নীলা মনোয়ার |

বাংলাদেশের কোন ইন্ডাস্ট্রি যদি প্রশ্নাতীত নারী নেতৃত্বের অধীনে থাকে, তা হচ্ছে ভিক্টোরিয়ান ফার্নিচার ইন্ডাস্ট্রি। ফার্নিচার ইন্ডাস্টির প্রথম নারী উদ্যোক্তা নীলা মানোয়ার । তার হাতে আঁকা ফার্নিচারের ডিজাইন দেখলেই বোঝা যায় কতটা প্যাসনেটলি গড়েছেন এথেনাস ফার্নিচারকে। প্রতিটি আসবাবই যেন একটা গল্প । এথেনাস ফার্নিচার যেন ধরে রেখেছে শত বছরের রেনেসার আর্ট এবং সংস্কৃতির ঐতিহ্য।
Neela Manowar captured in her work at Athena’s factory

প্রশ্ন: ১. করোনা মাথায় রেখে দিনকাল কেমন যাচ্ছে ?

সত্যি বলতে করোনা শব্দ টি রিপ্লেস করে ফেলেছি সাধধানতা শব্দটা দিয়ে। যতোটুকু সম্ভব সাবধানতা অবলম্বন করেই করণা কালীন সময় কাটছে। তবে কিছুটা অ্যাডজাস্টমেন্ট তো এসেছেই। বিভিন্ন ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কাজগুলো সেরে নিচ্ছি, বাসায় অসুস্থ শশুরের কথা মাথায় রেখে বাইরে যাওয়াটা প্রায় বন্ধই। আর বাইরে যাওয়া মানেই ফ্যাক্টরি এবং শোরুম ভিজিটেই সীমাবদ্ধ।তবে ভালো লাগছে বলতে  জীবনের শ্রেষ্ঠ রমজান মাস পার করলাম। ইউনিভার্সিটি বন্ধ থাকার কারণে আমেরিকা থেকে দুই ছেলেই ফেরত চলে এসেছিল । পুরো পরিবারের একাত্মতা ও ঘনিষ্ঠতা প্রাণ ভরে উপভোগ করেছি । নামাজ, রোজা, ইফতার , সেহরি, তারাবি সব কিছুর মাঝেই যেন আল্লাহতালা একটু বেশি নেয়ামত রহমত এবং ধৈর্য দিয়ে রেখেছিলেন।

প্রশ্ন : ২. একজন সফল ব্যবসায়ী হিসেবে যে যে সংস্থার সাথে জড়িত আছেন শেয়ার করুন ?

২. ব্যক্তিগত ও ব্যাবসায়িক কারনে বিভিন্ন সংস্থার সাথে জড়িত থাকা হয়, তাদের মাঝে উল্লেখ্যঃ

• Bangladesh Women Chamber of Commerce and Industries
• Women Entrepreneur Association of Bangladesh
• France- Bangladesh Chamber of Commerce and Industries
• Zonta Club
• Lions Club
• Rotary Club

Neela Manowar at her office

প্রশ্ন : ৩. একজন নারী হিসেবে কি ধরনের ছোট বা বড় বৈষম্যের শিকার হয়েছেন ? 

নারী-পুৱুষ নির্বিশেষে সবাইকেই কষ্ট-বৈষম্যের মুখোমুখি হতে হয়- কাউকে জেন্ডার-ভিত্তিক, কাউকে ধর্মের ভিত্তিতে, কাউকে আবাৱ ভাষা-বর্ণেৱ ভিন্নতার কারণে। আমি শুরু থেকেই খুব পজিটিভ মাইন্ডেড, বৈষম্যেৱ কথা খুব একটা মনে পড়ে না। তবে নারী হিসেবে ব্যবসায় আসার জন্য যে আলাদা সম্মান ও শ্রদ্ধা পেয়েছি সে সব মনে পড়ে। আমার শাশুড়ি অনেকটা হাত ধরেই আমাকে এগিয়ে দিয়েছেন । আত্মীয়-স্বজন বন্ধুমহল সবার উৎসাহে বৈষম্য গুলোকে খুব বেশি মনে মনে করতে পারছি না। 

প্রশ্ন : ৩/বি. নারীর ক্ষমতায়নে পুরুষ কী কী ভূমিকা নিতে পারে ?

 নারীর ক্ষমতায়নে শুধু নারীই ভূমিকা রাখতে পারে, প্রয়োজন শুধু শিক্ষা , নিজের প্রতি আস্থা, সাহস, এবং অদম্য ইচ্ছা। পুরুষ শুধু সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারেন। সমাজ থেকে কুসংস্কার, অপপ্রচার এবং অপব্যাখ্যা গুলোকে দূৱ করতে হবে। জানাতে হবে ইসলাম বলে “পুরুষ ও নারী সমান”। জানাতে  হবে হযরত আয়েশা (রা:) যুদ্ধ করেছেন,জানাতে হবে হযরত খাদিজা (রা:) ব্যাবসা কৱেছেন।ভুলে যেতে হবে যে, পুরুষ নারীকে বা নারী পুরুষকে ক্ষমতার শীর্ষে পৌঁছাবে । শুধুমাত্র নিজ গুণেই, নিজ শিক্ষাতেই এবং নিজের ইচ্ছাতেই একজন মানুষ, পুরুষ কিংবা নারী, সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছাতে পারে।

Neela Manowar at an event with iconic entrepreneur Rokia Afzal & Former USA ambassador

প্রশ্ন ৪ : ক্যারিয়ারে অনেক অর্জন। উল্লেখযোগ্য কিছু কৃতিত্বের কথা হারনেটের সাথে শেয়ার করুন।

আমার জীবনের অনেক অর্জন এমনটা বলার মত পর্যায়ে এখনো পৌঁছাতে পারেনি । তবে বলতে পারি আমি একজন সুখী মানুষ। কখনো কারো ক্ষতি করিনি বা অমঙ্গল কামনা করিনি, আমার তিন ছেলে মেয়েকে মানুষ করতে পেরেছি, স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়ি, দেবর-জা, ননদ-ননাস, বিরাটি একান্নবর্তী পরিবারে আলহামদুলিল্লাহ রীতিমতো এক সুখের সাম্রাজ্যে আছি ।আর ব্যবসায়ী দৃষ্টিকোণ থেকে যদি বলেন ৭ জনকে নিয়ে শুরু করা এথেনাস ফার্নিচার আজ ৬০০ অদম্য পরিশ্রমী মেধাবী এবং অনন্য কাঠকারু শিল্পীর নির্ভরযোগ্য আস্থার প্রতিষ্ঠান।আর যখন দেখি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এথেনাস ফার্নিচার যাচ্ছে, তখন মনে হয় একটা কিছু হয়তো অর্জন করেছি। যখন দেখি বাবা এবং শ্বশুরের বন্ধু আইসিসির প্রেসিডেন্ট মাহমুদ চাচা বলছেন, “Your Furniture is the Best”, তখন মনে হয় একটা কিছু হয়তো অর্জন করেছি। যখন দেখি আমেরিকান এ্যম্বাসেডর বাংলাদেশ থেকে যাবার সময় এথেনাসের একটি show piece সাথে করে নিয়ে যাচ্ছেন, তখন মনে হয় একটা কিছু হয়তো অর্জন করেছি। এছাড়াও মিরর বিজনেস অ্যাওয়ার্ড 2017 , 2018 ; লায়ন ক্লাব অ্যাওয়ার্ড 2017, DITF gold award 2012, ন্যাশনাল ফার্নিচার অ্যাওয়ার্ড 2014, 2016, 2017, 2019 ; চিটাগং ফার্নিচার ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড 2012, 2016, 2017; বিএফআইডি এক্সপো অ্যাওয়ার্ড 2014,2015 উল্লেখযোগ্য কয়েকটি ।


প্রশ্ন : ৫. যে যে পারিবারিক মূল্যবোধ নিয়ে বড় হয়েছেন।

 আমার দাদা এবং বাবা ছিলেন ব্যবসায়ী, শিক্ষাবিদ, সমাজসেবী এবং দানশীল। আমার বিয়ে হয়েছিল মাত্র ১৯ বছর বয়সেই। বাবাকে হারাই ছোটবেলায়, ছোট বয়সে যার স্নেহছায়ায় আসতে পেরেছি তিনি আমার শ্বশুর, বাংলাদেশের অন্যতম ব্যক্তিত্ব- none other than – আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন। যদিও দুটি ভিন্ন পরিবার কিন্তু পারিবারিক মূল্যবোধ অনেকটা একই রকম। আমি যা শুরু করেছিলাম আমার বাবার বাড়িতে, তারই কনটিনিউটি হয়েছে আমার শ্বশুরবাড়িতে। একা একা আইল্যান্ড মোডো সুখী হওয়া যায় না, নিজের সুখ ছড়িয়ে দিতে হবে পরিবারের মাঝে, পরিবারের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে হবে সমাজের মাঝে। আমার শ্বশুর মানুষকে খুব ভালোবাসতেন, প্রতিটি মানুষকে আপন করে নিতে পারতেন, সম্মান দিয়ে কথা বলতেন।  তিনি প্রায়ই বলতেন-“মানুষ গরীব হয়ে জন্মায় না, মানুষ মানুষ হয়ে জন্মায়” তার সারাটা জীবন কেটে গেছে মানুষের উপকার এবং মানুষের জন্য কর্মসংস্থানে। আমার বাবাও ছিলেন একই রকম । আমি ঠিক এই একই মূল্যবোধকে ধারণ করে বেঁচে থাকতে চাই। 

Neela Manowar with her Husband and children


প্রশ্ন : ৬. পেশাদার ব্যবসায়ী হিসেবে আপনার নেতৃত্বের ধরন কি ?

 আমার নেতৃত্বের ধরণ হচ্ছে নেতৃত্ব তৈরি করা । সবার মধ্যে তার ভেতরের লিডারশীপকে জাগিয়ে তোলা । তার কাজের উপর আরো দশটা পরিবার নির্ভরশীল, সেই উপলব্ধি থেকে দায়িত্ববোধ জাগিয়ে তোলা। সবাই কে এমন ভাবে কাজের স্বাধীনতা দেয়া, যা তাদের আরও একনিষ্ঠ করে দেয় ।  আমার কর্মীরা প্রত্যেকেই তার নিজ নিজ কাজেরক্ষেত্রে একজন এমডি, এই অনুভবটাই তাদের মাঝে আনার চেষ্টা করি।


প্রশ্ন:৭. শত কাজের ব্যস্ততায়ও কিভাবে রিলাক্স রাখেন নিজেকে ?

 যেহেতু সৃজনশীল কাজ করি, আমার রিলাক্সেশন যেন আমার কাজের মধ্যেই খুঁজে পাই । তবে পরিবারের জন্য রান্না, নতুন বিষয়ে পড়াশোনা, ইয়োগা আমার খুব পছন্দ। আমার হাজব্যান্ড মানোয়ারের সাথে বৃষ্টি উপভোগ করা যেন স্বর্গীয়। 


প্রশ্ন ৮ : যদি কখনো হারনেট এর সাথে সম্মিলিতভাবে কাজ করার সুযোগ আসে। নারী কল্যাণে কোন বিষয়টা নিয়ে কাজ করতে চাইবেন ?

আমার হাজব্যান্ড তার কর্মীদেরকে প্রায়ই বলেন “আপনার সন্তানকে স্কুলে পাঠাতেই হবে”, আমিও শিক্ষায় বিশ্বাসী,এক সময় স্কুলেও পরিয়েছি।  HerNet এ নারীদের নিয়ে কাজের সুযোগ পেলে, আমি নারী শিক্ষা নিয়ে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ। আমি বিশ্বাস করি, শিক্ষার ভিত্তি শক্ত না হলে নারীদের পরনির্ভরশীলতা, নিন্মআয়ের কর্মক্ষেত্র থেকে কখনোই বের করে আনা সম্ভব হবে না। একই সাথে আমি এও বিশ্বাস করি, একা প্রতিষ্ঠত হলেই হবে না, আমাদের আসে পাশের নারীদেরকেও সে সুযোগ করে দিতে হবে, তবেই সমাজে পরিবর্তন আসবে। সে লক্ষে আমি প্রতিবছরই নারী ঊদ্দক্তাদের ভিন্নধর্মী আয়োজন করি, যেখানে নারীউদ্যোক্তা তাদের নিজস্ব পণ্য ও পরিচিতির জন্য একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরির সুযোগ পান। তাদের মধ্যে অনেকেই এখন  স্ব-ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত । যা আমাকে অনাবিল আনন্দ দেয়।  


প্রশ্ন ৯: ক্ষমতায়নে হার্নেট একটি বিপ্লবী উদ্যোগ। এই টিভি থেকে আপনার প্রত্যাশা কি ?

HerNet, সত্যিই একটি বিপ্লবী উদ্যোগ, একটি ভিন্ন চিন্তা ধারা। HerNet কেও আমি একটু ভিন্নভাবে দেখতে চাই। পুরুষ নারীর জন্য যত বড় বাধা, বাস্তবে যা দেখতে পাই, নারীরা নারীদের কম জন্য বড় বাধা নয়। আমার কাছে বেশ কিছু নারীকর্মী আছেন, তাদের জীবনের গল্প লোমহর্ষক। প্রায় প্রত্যেকেই পরিবারের অন্য নারী সদস্যের হিংসা, আক্রোশ, দুর্ব্যবহার, অর্থলিপ্সার শিকার। আমি HerNet কে বলব নারী যেন নারীকে সম্মানের চোখে দেখেন, এমন কিছু বিপ্লবী উদ্যোগ নিয়ে কাজ করতে। 

Neela Manowar with the Founder of HerNet Alisha Pradhan , former USA ambassador & Tootli Rahman at Heritage hut exhibition .

প্রশ্ন ১০. নারী কল্যাণে এশিয়ার প্রথম টিভি হারনেট এর প্রতিষ্ঠাতা আলিশা প্রধান সম্পর্কে অভিমত ও উপদেশ ?


আলিশা প্রধান জীবনকে দেখার দৃষ্টিভঙ্গি আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে । কাজ করছেন নারী ক্ষমতায়ন, বৃদ্ধাশ্রম, থার্ড জেন্ডারসহ নানাবিধ জটিল সামাজিক সমস্যা গুলো নিয়ে, যা আমাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থানকে এগিয়ে যাবার পথে বাধা দেয়, আলিশা যেন সমাজের সেসব বাঁধা গুলোকেই ভেঙ্গে সমাজকে সামনে এগিয়ে নিতে চায় । তার অফুরন্ত প্রাণশক্তি আর নারীদের জন্যে একটা শক্ত অবস্থান তৈরি করবার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত অভিনব আইডিয়া থেকেই হারনেটের মতো ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। আমি আলিশার এই উদ্যোগকে এপ্রিশিয়েট করি, একি সাথে তার কাছে প্রত্যাশা থাকবে,যেন সে  নারী শিক্ষা নিয়েও এমন কোন উদ্যোগ নেয় ।

Quick Note Segment: 

প্রশ্ন ১ : আপনার স্ট্রেংথ ও উইকনেস কি ? 
আমার স্ট্রেন্থ আমার ফ্যামিলি আর উইকনেস আমার মা। 
প্রশ্ন ২ : কখন খুব রাগ হয়, কোন বিষয়টি বেশি আবেগী করে তোলে ?
 খুব রাগ হয় যখন যেমন সময় মতো কোনো কাজে পৌঁছাতে পারি না।  বাবার স্মৃতি আমাকে খুব আবেগপূর্ণ করে তোলে। 

প্রশ্ন ৩ : প্রিয় মোবাইল এ্যাপ কোনটি এবং টিভিতে প্রিয় অনুষ্ঠান কি ?
 প্রিয় এ্যাপ : মুসলিম প্রো      Netflix favorite series : Suits, Friends, Money Heist Etc.
প্রশ্ন ৪: চারিত্রিক কোন বৈশিষ্ট্যগুলো পছন্দ এবং অপছন্দ করেন ?
মৃদুভাষী, নিরহংকার, সত্যবাদী, humble, kind hearted, মানুষদের পছন্দ করি , আর অপছন্দ করি অহংকারী , Materialistic এবং আত্মঅহমিকাকারীদের। 
৫. প্রিয় লেখক :
হুমায়ূন আহমেদ এবং সমরেশ মজুমদার    প্রিয় বই :
তিন পুরুষ, গর্ভধারিনী, সাতকাহন, কালবেলা,কালপুরুষ,দূরবীন ।   
শখ : রান্না করা, বাগান করা। 
প্রশ্ন ৬ : ভালোবাসা এবং বন্ধুত্বের সংজ্ঞা আপনার কাছে কি ?
ভালোবাসা ও বন্ধুত্বের সংজ্ঞা হচ্ছে – যাকে মন খুলে সব কথা বলা যায়। 
প্রশ্ন ৭.  : কি রান্না পছন্দ করেন, প্রিয় খাবার কি ?
 রান্না করতে ভালো লাগে: সরিষা ইলিশ, খিচুড়ি, মেজবানি ভুনা।      আর প্রিয় খাবার: বিফ স্টেক। 
প্রশ্ন ৮.: তরুন প্রজন্মের নারীদের সফলতা অর্জনে কিছু সিক্রেট টিপস বলুন । সিক্রেট টিপস হলো:  “জিতবই”  
প্রশ্ন ৯ : ২৮ শে সেপ্টেম্বর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন। তার নেতৃত্ব কে কিভাবে সংজ্ঞায়িত করবেন ? 
আমার সন্তানদের আমি প্রায়ই বলি, আজ থেকে ৫০ বছর পর যখন পরবর্তী প্রজন্ম পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ ও সফলতম রাষ্ট্রনায়কদের (পুরুষ কিংবা নারী) ইতিহাস পড়বে ,আমাদের বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নামটি উঠে আসবে একেবারে প্রথম সারিতে। তার ইতিহাস বিশ্ববাসীকে পড়তেই হবে। বাংলাদেশের এই ঘুরে দাঁড়ানোর অধ্যায়টি হয়ে থাকবে অনুন্নত দেশের উন্নয়নের দলিল ।শুভ জন্মদিন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলার প্রতিটি ঘরেই যেন একজন করে শেখ হাসিনা জন্ম নেন।

Neela Manowar with HPM Sheikh Hasina

By HerNet

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *