Sat. Jan 23rd, 2021
তিন জেলায় ধর্ষিত তিন প্রতিবন্ধী

নেত্রকোনার কেন্দুয়া, বরিশালের গৌরনদী ও নরসিংদীর পলাশে তিন প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে ঘরে একা পেয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেছেন প্রতিবেশী এক তরুণ। এদিকে আট জেলায় ধর্ষণ ও ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে এক প্রধান শিক্ষকসহ ১৪ জনকে। নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

পলাশ (নরসিংদী) : পলাশে ১৭ বছর বয়সী এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শুক্রবার রাতে পলাশ উপজেলার জিনারদী ইউনিয়নের কুড়াইতলী এলাকার ছয়ঘরিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার গভীর রাতে তৌকির নামে একজনকে আসামি করে পলাশ থানায় মামলা দায়ের করেন ওই কিশোরীর মা। পুলিশ অভিযুক্ত তৌকিরকে গ্রেপ্তার করেছে। তিনি উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের মাঝেরচর এলাকার রিপন সরকারের ছেলে। পিরোজপুর : স্বরূপকাঠিতে ঘরে একা পেয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে মো. জুয়েল নামে এক তরুণকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিনি উপজেলার পশ্চিম সোহাগদল গ্রামের মো. শহিদ মিয়ার ছেলে। গত শুক্রবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে। রাতে নির্যাতিতার মা নেছারাবাদ থানায় মামলা দায়ের করেন। এর পরপরই জুয়েলকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল তাকে পিরোজপুর আদালতে এবং গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নেত্রকোনা : কেন্দুয়ায় বাকপ্রতিবন্ধী এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার গণ্ডা ইউনিয়নের মরিচপুর গ্রামে ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। রাতে ওই নারীর মা মামলাটি দায়ের করেন বলে কেন্দুয়া থানার ওসি (তদন্ত) হাবিবুল্লাহ খান জানান। আসামি মজনু মিয়া উপজেলার মোজাফরপুর গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে। এদিকে ওই নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্যে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মজনুকে আটক করতে পুলিশের অভিযান চলছে।

সাতক্ষীরা : আশাশুনি উপজেলায় স্কুলছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মইনুর রহমান নামে এক স্কুলশিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৯ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার কোদ-া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মইনুর রহমান ওই গ্রামের বাবর আলী গাজীর ছেলে ও আশাশুনি প্রি-ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক। গত শুক্রবার সকালে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে তিনি ওই ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। আশাশুনি থানার ওসি গোলাম কবির জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

বরিশাল : শারীরিক ও মানসিক প্রতিবন্ধী এক কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হলে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা করেছেন তার বাবা। গত বৃহস্পতিবার গৌরনদী মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়। অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই কিশোরীর প্রতিবেশী আরজ বেপারির পুত্র সিরাজুল ইসলাম বেপারি। তিনি চার সন্তানের জনক। গৌরনদী মডেল থানার নবনিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আফজাল হোসেন জানান, সিরাজুলকে গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা চলছে।

যশোর : বাসে এক নারীকে ধর্ষণের মামলার সাত আসামিকে গতকাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। এ মামলার প্রধান আসামি মনিরুল ইসলাম ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের ওহিদুলের ছেলে ও এমকে পরিবহনের হেলপার। তিনি যশোর সদর উপজেলার রামনগর ধোপাপাড়ায় কাঠমিস্ত্রি শহিদুলের বাড়ির ভাড়াটিয়া এবং এক কন্যাসন্তানের জনক। বাকি ছয় আসামি হলেনÑ শহরের সিটি কলেজপাড়ার রনজিৎ বিশ্বাসের ছেলে কৃষ্ণ, একই এলাকার সমর সিংহের ছেলে সুবাস সিংহ, শহরের বারান্দিপাড়ার জাবেদুল ইসলাম জাবেদের ছেলে রকিবুল ইসলাম রকিব, শহরের বেজপাড়ার গোলাম মাওলার ছেলে মইনুল ইসলাম মইন ও শহরের পূর্ববারান্দি মোল্লাপাড়ার শফিকুল ইসলাম বাবুর ছেলে শাহিন আহমেদ জনি। জানা যায়, মনিরুল আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিতে রাজি হয়েছে। শুক্রবার রাতে কোতোয়ালি থানায় সাতজনের নামে মামলা করা হয়েছে। বাদী ভিকটিম নিজেই। গত ৮ অক্টোবর গভীর রাতে যশোর শহরের মুড়লী বকচর কোল্ড স্টোরের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা এমকে পরিবহনের একটি বাসে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। ওই নারীর বাড়ি যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলায়। রাজশাহীর একটি ক্লিনিকে আয়ার চাকরি করেন তিনি।

গাজীপুর : সালনা এলাকায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে হাত-পা ও মুখ বেঁধে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি আরিফ ওরফে সবুজকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শুক্রবার রাতে সিটি করপোরেশনের তেলিপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার দুপুরে র‌্যাব ১-এর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাবের কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন। আরিফ ওরফে সবুজ শেরপুরের নালিতাবাড়ি থানার বরুড়াজানি গ্রামের মৃত খোরশেদ আলমের ছেলে। তিনি স্থানীয় টেকনগপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে গ্যারেজ মেকানিকের কাজ করতেন।

লালমনিরহাট : কালীগঞ্জে চলন্ত ট্রেন থেকে নামিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে ৪ জনকে আসামি করে গত শুক্রবার রাতে মামলা করে এক কিশোরী। এ ঘটনায় রাতেই রকি নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ। তিনি উপজেলার তুষভা-ার ইউনিয়নের তালুক বানিনগরের রজব আলীর ছেলে ও পেশায় অটোচালক। অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় মাতব্বররা বৈঠকে বসে গণধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে মোটা অঙ্কের টাকা নেন ধর্ষকদের কাছ থেকে। শুক্রবার (৯ অক্টোবর) বিকালে কালীগঞ্জ প্রেসক্লাব এলাকা থেকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে হেফাজতে নেয় কালীগঞ্জ থানা পুলিশ।

কক্সবাজার : রামু উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রামু উপজেলার চা-বাগান এলাকায় ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম গতকাল তার কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে জানান, শুক্রবার রাতে ভিকটিমকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এ ছাড়া রাতেই অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সাইফুল ইসলাম সোহেলকে আটক করা হয়। তিনি জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের পাহারিয়া পাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র। তার সহযোগী শাহেদকে আটকের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে মেয়েটির মা গতকাল রামু থানায় মামলা করেছেন। সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে সোহেলকে।

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) : উলিপুরে এক গৃহবধূকে রাতভর আটকে রেখে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ঘটে গত ২৫ সেপ্টেম্বর উপজেলার রাজারঘাট এলাকায়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ গতকাল থানায় মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয় ৫ জনকে। এ মামলায় পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলেন- উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের রাজারঘাট গ্রামের জনৈক আবু বক্কর, একই এলাকার সেফাত উল্যার ছেলে কায়ছার আলী, ফকর উদ্দিনের ছেলে সোবহান আলী লিটন ও আবুল হোসেনের ছেলে মমিনুল ইসলাম। তবে প্রধান আসামি ও ঘটনার মূল হোতা ওই নারীর প্রতিবেশী মোহাম্মদ আলীর পুত্র ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন উলিপুর থানার ওসি (তদন্ত) রুহুল আমীন।

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) : কমলগঞ্জে কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে শুক্রবার (৯ অক্টোবর) রাতে পুলিশ লুৎফুর রহমান (১৮) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করে। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৭টায় আদমপুর ইউনিয়নের আধকানি উপজেলা বাজারে কিশোরীকে ফুসলিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আধকানী উপজেলা বাজারের হারুক মিয়ার ছেলে লুৎফুর রহমান ও কাউয়ারগলা গ্রামের শরিয়ত মিয়ার ছেলে মঈনুল ইসলাম।

ফেনী : দাগনভূঁঞায় এক শিশুকে (১২) ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। একজনের নাম কবির আহম্মদ। তিনি উপজেলার পূর্ব চন্দ্রপুর ইউনিয়নের বৈঠারপাড় গ্রামের মৃত জালাল আহম্মদের ছেলে। অন্যজন কবিরের সহযোগী।

By HerNet

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *