Fri. Jan 15th, 2021

বিশ্বে লিঙ্গ বৈষম্য হ্রাসে এশিয়ার শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশ।  নারী ক্ষমতায়নের রূপকার হিসাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ বিশ্বব্যাপী সম্মানিত, তিনি অর্জন করেছেন অজস্র অ্যাওয়ার্ড , যেমন ‘লাইফ টাইম কন্ট্রিবিউশন ফর উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট’ সাউথ সাউথ অ্যাওয়ার্ড, ‘গ্লোবাল উইমেনস লিডারশিপ’ অ্যাওয়ার্ড ইত্যাদি। তাই তার জন্ম মাসে (২৮শে সেপ্টেম্বর) হারনেট নিউজ “WOMEN  LEADS, Inspiration HPM”  নামক কলামের  মাধ্যমে এমন সব নারীদের  প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চায় যারা এই অভূতপূর্ব ক্ষমতায়ন এবং অগ্রগতিতে বলিষ্ট ভূমিকা পালন করে চলছে । তার ধারাবাহিকতায় HerNet News এর ” ইন্টারভিউতে আজকের অতিথি সাদিয়া মইন- ​​লা বেল সেলুনের চিরন্তন খ্যাতির পিছনে যার নেতৃত্ব

করোনার এই ক্রান্তিকালীন পরিস্থিতিতে কেমন যাচ্ছে আপনার সময় ?

পরিবার এবং ঘনিষ্ঠজনদের সাথে বিচ্ছিন্নতা সৃষ্টি হয়েছে যেটা একেবারেই অনাকাঙ্খিত ছিল। অধিকাংশ পরিবারকে আর্থিক সঙ্কটসহ পরতে হয়েছে নানা ভোগান্তিতে। বেশ বিব্রতকর পরিস্থিতির মধ্য দিয়েই যেতে হয়েছে। তবে যেহেতু প্রতিষ্ঠান এবং কর্মীদের পরিচালনা করার গুরুদ্বায়িত্ব পালন করছি সেই জায়গায় বেশ লড়াই করেই টিকে থাকতে হয়েছে।

Sadia Moyeen doing charity for children under Thrive Foundation

সফল উদ্যোক্তা হিসেবে খ্যাতি রয়েছে । যেসব সংস্থার সাথে সম্পৃক্ততা রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে একটু জানতে চাই।

“লা বেল” বিউটি স্যালন দিয়েই যাত্রাটা শুরু। “ময়ীন ফাউন্ডেশনের প্রধান হিসেবে দ্বায়িত্বরত আছি। বাংলাদেশ অর্থোপেডিক সোসাইটির সাথে কাজ করছি। পাশাপাশি ” থ্রাইভ” নামক আরেকটি অলাভজনক সংস্থার সঙ্গেও জড়িত রয়েছি।

নারী হওয়ায় পরিবার,কর্মস্থল কিংবা সমাজে কি ধরনের বৈষম্য ও প্রতিকূলতায় পরতে হয়েছে ?

এ জায়গায় বেশ ভাগ্যবান বলতে হবে। প্রতিবন্ধকতা ছিল না বললেই চলে। আশেপাশে প্রচুর আপনজন পেয়েছি যারা আগলে রেখেছে,সমর্থন করেছে। এখনো করেই চলেছে। ধন্যবাদ নয় হারনেটের মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে চাই সেই মানুষগুলোর প্রতি।

Sadia Moyeen at La Belle salon

আপনার দুঃসময়ে সাহস এবং এগিয়ে যাওয়ায় অনুপ্রেরণা দিয়েছেন এমন কারো নাম যদি বলতে বলা হয়, কার কথা বলবেন ?

“আসিফ ময়ীন” যার হাত ধরে স্বপ্নগুলোকে সফল করতে পেরেছি। আর্থিক,মানসিক সমর্থন বা উৎসাহ – অনুপ্রেরণা যেটাই বলিনা কেন সবকিছুই এই মানুষটার Encouragement এই হয়েছে।

আরেকজন মানুষ যার নাম উল্লেখ না করলেই নয়। “জুলিয়া সেন” যিনি একাধারে আমার প্রশিক্ষক,পরামর্শদাতা এবং একিসাথে গাইডও। যিনি স্যালন ব্যবসায় আমাকে অনুপ্রাণিত করেন। তার অকৃত্রিম স্নেহ আর অক্লান্ত প্রচেষ্টার ফলেই আজকে আমি সফলতার দোরগোড়ায় পৌঁছেছি।

আরেকটি নাম আজকে বলতে চাই। আমেনা রহমান আমার ছেলেবেলার বন্ধু, বোন ও বটে। সকল জনকল্যাণকর কাজের সহযোগীও।

Sadia Moyeen with Foreign Secretary of India (former Indian hi Commission of Bangladesh)

আপনার প্রতিনিধিত্বের ধরন সম্পর্কে জানতে চাই ।

কর্মীদের কেবল আদেশ প্রদান করে নয় বরং তাদের আপন করে নিয়ে নিজে হাতে কলমে শিখিয়ে ব্যবসার পরিবেশ সৃষ্টি করাই আমার প্রকৃতি।

অবসর সময়ে কিভাবে নিজেকে Relax রাখেন ?

Sadia Moyeen with Alisha Pradhan, Sarah Karim, Jasmin Khan & Luna

পরিবার, সন্তান-সন্ততি ও নাতী-নাতনীদের নিয়ে সময় কাটাতে পারলে বেশ ভালই লাগে। সিনেমা দেখে কিংবা বই পড়ে,পোষা প্রানীদের নিয়ে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেই ঘরবন্দি সময়কে উপভোগ করছি।

নতুন প্রজন্মের যারা শুরু করতে চায় তাদের উদ্দেশ্যে আপনার কি বলার আছে ?

সফলতার পূর্বশর্ত হচ্ছে ধৈর্য,সংকল্প,কঠোর পরিশ্রম এবং হাল ছেড়ে না দিয়ে কাজ করা। কাজকে ভালবাসতে হবে। আন্তরিকতা এবং সততা থাকাটা খুব জরুরি।
তবেই আসবে কাংক্ষিত সফলতা।

হারনেটের সাথে যৌথভাবে কাজ করার স্থান তৈরী হলে নারীকল‍্যানের কোন বিষয়টি নিয়ে কাজ করতে চাইবেন ?

নারী অধিকার সম্পর্কিত যেকোনো বিষয় নিয়ে কাজ করতে চাইবো। নারী পাচার, নির্যাতন এ ধরনের বিষয়গুলো নিয়েই মূলত ফোকাস থাকবে। নারী ক্ষমতায়নকে প্রতিষ্ঠিত করতে হারনেট অবশ্যই বিপ্লবী উদ্যোগ। নারীস্বর কে আরও উজ্জীবিত ও প্রজ্জলিত করতে হারনেট অসাধারন একটি প্লাটফর্ম। পাশাপাশি কাজ করার সুযোগ যেহেতু এসেছে সমাজের অবহেলিত তৃতীয় লিঙ্গ গোষ্ঠী, শিশুদের নিয়েও কাজ করার ইচ্ছে পোষণ করছি।

হারনেটের প্রতিষ্ঠাতা সম্পর্কে আপনার অভিমত এবং উপদেশ কি ?

Founding CEO of HerNet TV, Alisha Pradhan

দারুন একটি উদ্যোগ গ্রহণ করেছে আলিশা। যে দেশের নেতৃত্বে আছেন একজন সম্মানিত নারী সেখানে নারীদের নিয়ে কাজ করার মতো আলাদা এবং সময়োপযোগী একটি প্লাটফর্ম তৈরী করেছে আলিশা। যেখানে তুলে আনা হবে সমাজের সর্বস্তরের নারীদের গল্প। অনেক প্রত‍্যাশা ও শুভকামনা থাকবে প্রতিষ্ঠাতা প্রধান এবং পুরো হারনেট পরিবারের জন্য। শুধু উপদেশ নয় আদেশ থাকবে হারনেট কে অনেকদূর এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যেন প্রচেষ্টা চালিয়ে যায়। আমাদের সকলের সঠিক সহযোগিতায় হারনেট টিভি বাংলাদেশকে টেকসই ‘উন্নয়ন লক্ষ্য 5’ অর্জনে অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

By HerNet

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *